সীমান্তবর্তী নওয়াগ্রামের হিজরার ঝাটকা চাদাবাজি

ছাতকবাজার ছাতকবাজার

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ৫:৩৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০
নিউজ শেয়ার করুনঃ

মোঃইবাদুর রহমান জাকির

সিলেট জেলার বিয়ানীবাজার উপজেলার ১০নং মুড়িয়া ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী নওয়াগ্রামে ২৯সেপ্টেম্ভর দুপুর ১২টার সময় বিয়ানীবাজার টু সারপার রোডে (সিএনজি)যোগে সীমান্তবর্তী নওয়াগ্রামে আসে পাঁচজন তৃতীয় লিঙ্গের সদস্য তারা গ্রামের ভিতরে এসে প্রতি ঘরে ঘরে গিয়ে আকম্বিক ভাবে অর্থ দাবীকরে অনেক ক্ষেত্রে গ্রামের মহিলার টাকা দিতে ব্যর্থ হলে চাল দেওয়ার জন্য দাবী করে দিতে অস্বীকৃতি করলে,ভিন্ন প্রকার গালিগালাজ করে থাকে. হঠাৎ তাদের এই ঝাটিকা চাঁদা আদায় ও চাল সংগ্রহ গোঠা এলাকা বিশ্মিত করে তোলেছে, তাদের এই ঝাটিকা চাঁদাবাজিতে এলাকার অনেক ছোট ছোট সন্তান ভয়ে কম্পিত হচ্ছে। উল্লেখ্য নওয়াগ্রামের একজন বাসিন্দা নুরুন নাহার বলেন কোভিড১৯ নে জর্জরিত সারা বিশ্ব গ্রামের খেটে খাওয়া মানুষ বেকার তখন তারা গ্রামে এসে এই এই প্রকাশ্য দিবালোকে চাঁদা আদায় তৃতীয়।

লিঙ্গ লোকগুলো বিয়ানীবাজার সদরে দেখা যায় সর্বদা তাদের কে সেখানে টাকা দেই পাইলে কেন আসবে এলাকায় ছোট শিশুদের কে ভয় দেখাবে তাদের আচরণ ও মুখের ভাষা দিয়ে। আমরা আর তাদের কে গ্রামে দেখতে চাইনা তারা শহরে বাজারে চাঁদা তুলক সমস্যা নাই।