ছাতকের সাবেক ছাত্র নেতা মঞ্জুর আলম এর জন্মদিনে দোয়া কামনা

ছাতকবাজার ছাতকবাজার

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ৭:৩৩ অপরাহ্ণ, মে ৩১, ২০২০
নিউজ শেয়ার করুনঃ

সুজন তালুকদার:-
ছাতকের আওয়ামী পরিবারের পোড় খাওয়া সাবেক ছাত্রনেতা মঞ্জুর আলমের জন্মদিন,সকলের কাছে দোয়া কামনা”ছাতকের সকল ছাত্র নেতাদের কাছে সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্যক্তি,সাবেক ছাতক উপজেলা ছাত্রলীগের সফল সাংগঠনিক সম্পাদক,নিবেদিত প্রাণ,ত্যাগী পরিশ্রমী হাজার ও ছাত্রলীগ নেতা কর্মীর হৃদয়ের স্পন্দন,জাতির জনক বঙ্গ বন্ধুর আদর্শের রাজনীতিতে যতটুকু ত্যাগ,পরিশ্রম,মেধা শক্তি দিয়ে ছাতকের রাজপথে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে গ্রুরত্ত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন সকল লোভ লালসার উর্ধে থেকে,সেই ছাত্রনেতার শুভ জন্মদিনে আমাদের সাংবাদিক পরিবারের পক্ষ থেকে জানাই আন্তরিক অভিনন্দন এবং জন্মদিনের শুভেচ্ছা,দীর্ঘ ২২টি বছর যাবত যিনি ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত থেকে নিজের জীবনের সব কিছু বিলিয়ে দিয়ে এখনও পর্যন্ত রাজনীতির মাঠে ঠিকে আছেন সেই মুজিব আদর্শের কর্মী বান্ধব এই নেতার জন্মদিনে আমরা ও গর্বিত,খবর নিয়ে জানা যায় গোবিন্দগঞ্জ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় স্কুল জীবন থেকেই উনার প্রয়াত পিতা বঙ্গবন্ধুর আরেক আদর্শের কর্মী প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা মরহুম আলকাব আলী সাহেবের উৎসাহ উদ্ধীপনায় সাবেক ছাত্রনেতা রফিকুল ইসলাম কিরণের মাধ্যমে জাতির জনক বঙ্গ বন্ধুর আদর্শের সংগঠন শিক্ষা শান্তি আর প্রগতির পতাকাবাহী সংগঠন ছাত্রলীগের একজন কর্মী হয়ে রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন।বি,এন,পি জোট সরকারের সময় বার নির্যাতিত হয়েছেন,মামলা হামলার শিকার হয়েছেন অনেকবার,২০০১ইং এর নির্বাচনের পরেই বি,এন,পি জামাত জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পরদিনই গোবিন্দগঞ্জ কলেজে তাহার উপর ছাত্রদল নেতাকর্মীরা হামলা চালায় ছাতকেই এটিই ছিলো তাদের ১ম আক্রমন,ক্লিন হার্ট অপারেশন এর সময় ও মুজিব আদর্শকে লালন করে ছাতকের রাজপথে তিনি ছিলেন অগ্রণী ভুমিকায়,দেশরত্ন শেখ হাসিনার মুক্তির আন্দোলনে অগ্রনী ভুমিকা রেখেছেন তিনি,ক্লিনহার্ট অপারেশন এর নামে তাহার বাড়ী কয়েকবার ঘেরাও করেছিলো যৌথ বাহীনি,তাহার চাচাতো ভাইকে ধরে নিয়ে গিয়ে অনেক নির্যাতন করেছিলো সেই সময়,সেই সময়ে অনেক বড় বড় ছাত্রলীগ নেতারা তখন ছাত্রলীগের নাম নিয়ে রাজপথে দাড়ানো তু দূরের কথা বরং ছাত্রদল আর শিবিরের সাথে লিয়াজো করে ও চলতে দেখা গেছে সেই সময়ে,কিন্ত আপোষ আর সংগ্রাম করে চলে গেছেন সাবেক এই ছাত্রলীগ নেতা মঞ্জুর,বেশির ভাগ ছাত্রলীগ নেতারাই দলের দুঃসময়ে বিদেশ চলে গেছেন এই পোড় খাওয়া ছাত্রনেতাকে একা রেখে,বাবা মায়ের জায়গা বিক্রি করে সেই সময়ে সংগঠন চালাতেন তিনি,গোবিন্দগঞ্জ কলেজ ক্যাম্পাসে মুজিব আদর্শকে বুকে লালন করে সংগঠনকে ঠিকিয়ে রাখার জন্য বহুবার নির্যাতনের শিকার হয়েছেন তিনি,কিন্তু এতো কিছুর পর ও তিনি ছাত্রলীগের হাল ছাড়েননি যাহা আজ অব্দি পর্যন্ত বহাল রেখেছেন,নিজের কথা চিন্তা না করেই তিনিই সংগঠনকে অনেক মূল্যবান সময় দিয়েছেন এবং দিয়ে যাচ্ছেন,আজ কাল সবাই ছাত্রলীগ করেই যাচ্ছেন ২০০৮ এর নির্বাচনের পরেই আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পরেই অনেকেই বাড়ী,গাড়ী বিশাল সম্পত্ত্বির মালিক হয়েছেন,কিন্তু সাবেক এই ছাত্রনেতার সেই আগের অবস্থা তিনি নিজেই কোনো কিছু করতেই পারেন নি,তবেই ইচ্ছা করলেই অনেক কিছুই করতে পারতেন,উনাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান টেন্ডারবাজী আর চাঁদাবাজি এবং অবৈধ পথে টাকা কামিয়ে মানুষের ভালোবাসা পাওয়া যায় না,মানুষের ভালোবাসা পেতে হলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রকৃত আদর্শের একজন কর্মী হলেই যথেষ্ট, তখন সাধারণ মানুষের ভালোবাসা পাওয়া যায়,অনেক লোভ লালসার ঊর্ধ্বে তিনিই রাজনীতি করেই যাচ্ছেন,এবং ঠিকে আছেন,রাজপথেই আওয়ামীলীগের দুঃসময়ে তখনকার সময়ে ফখর উদ্দিন,মঈন উদ্দিন সরকারকে হঠানোর আন্দোলনের ছাতকের রাজপথে অগ্রনী ভূমিকা পালণকরেছেন,ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে অনেক বার কারা বরণ করেছেন,সাবেক ছাত্রনেতা সকলের প্রিয় এবং পরিচিত মূখ,এম,পি মুহিবুর রহমান মানিক সাহেবের আস্তাভাজন ব্যক্তিত্ত্ব,বর্তমান ছাতক উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সংগ্রামী সাংগঠনিক সম্পাদক,মঞ্জুর আলম ভাইয়ের জন্মদিনে জানাই প্রাণঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা,শুভ কামনা রহিলো ভাই আপনার জন্য,তবে এটা দ্রুব সত্য ভাই আমাদের জানামতে ছাতকের ছাত্রলীগের রাজনীতিতে রাজপথেই আপনার নামটাই স্বর্ণাক্ষরেই লিখা থাকবে সারা জীবন।খুব দ্রুত আপনি আবার ও সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করেই রাজনীতিতে রাজপথেই আবার ফিরেই আসবেন,এটাই আমাদের সকলের প্রত্যাশা।জন্মদিন উপলক্ষ্যে তিনি বলেন দীর্ঘ দিন আমি আমার ফেইসবুকে জন্মদিনের তারিখ টা হাইড করে রেখেছিলাম,কিন্তু আমার অগণিত অসংখ্য মায়ার কিছু ছাত্রলীগের ছোট ভাই সেটা জেনে যাওয়ার ফলে এবং তাদের অনুরুধে এই জন্মদিন এর তারিখ উন্মুক্ত করে দিলাম,এবং তিনি আরো জানান বিশ্বে মহামারি করুনা ভাইরাস থেকে যেনো মহান আল্লাহ পাক আমাদের সকলকে রক্ষা করেন,পরিশেষে তিনি সকলের কাছে দোয়া কামনা করেন।।
উল্ল্যেখ্য যে জনাব মঞ্জুর আলম স্কুল জীবনের রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে ২০০২ইংতে ছাতক উপজেলা ছাত্রলীগের শাহীন আহমদ চৌধূরী আহবায়ক জসিম উদ্দিন সোহেল এবং আব্দুল বারী চপলের কমিটিতে আহবায়ক কমিটির সিনিয়র সদস্য ছিলেন,২০০৬ এড,ছায়াদুর রহমান সভাপতি এবং মাহফুজ বাবলু সাধারণ সম্পাদকের কমিটিতে দীর্ঘ দিন সাংগঠনিক সম্পাদকের দ্বায়িত্ত্ব পালন করেন,এবং সর্বপূরী ছাতক উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের বর্তমান কমিটির সভাপতি ওবায়দুর রউফ বাবলু এবং আব্দুস শহিদ এর কমিটিতে সাংগঠনিক সম্পাদকের দ্বায়িত্ত্ব পালন করে যাচ্ছেন,যাহা চলমান রয়েছে।